1. admin@manirampurkantho.com : admin :
শিরোনাম :
ত্রানের চাল চুরির মামলায় প্রতিমন্ত্রীর ভাগ্নে বাচ্চুর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা ও মাল ক্রকের আদেশ মনিরামপুরের কৃতি সন্তান ডা. মেহেদী হাসানকে করোনা চিকিৎসায় বিশেষ অবদানের জন্য সংবর্ধনা প্রদান মণিরামপুরে জেল হত্যা দিবসে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত মণিরামপুরে মামার ধর্ষণের শিকার ভাগ্নি অবরুদ্ধ যে কোন সময়ে অপহরণ হতে পারে ধর্ষিতা ধর্ষণ, শিশু নির্যাতন বন্ধসহ অপরাধীদের ফাঁসির দাবীতে মণিরামপুরে বন্ধনের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত মনিরামপুরে ৫৫৫ বস্তা চাউল কান্ডে ভাইস চেয়ারম্যান বাচ্চুসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে ডিবির মামলা মণিরামপুরে মাদ্রাসার সুপার ও সভাপতির বিরুদ্ধে ভূয়া নিয়োগসহ অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন “শুভ মহালয়া”- সবাইকে আগমনীর আনন্দ বার্তা ও শুভেচ্ছা অতিরিক্ত ভর্তি ফি আদায়ের প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে উত্তাল মণিরামপুর সরকারী কলেজ ক্যাম্পাস মণিরামপুর সরকারি কলেজে অতিরিক্ত ভর্তি ফি আদায়ের অভিযোগ

ফুল চাষিদের ৪ শতাংশ সুদে ঋণ দিতে অর্থমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ

  • Update Time : বুধবার, ২৪ জানুয়ারি, ২০১৮
  • ২৪৮ Time View

ফরিদা ইয়াসমিন পলি, ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধি :  সারাদেশের ফুল চাষকে অফসল ধরে চাষিরা তেল, ডাল ও মসলার ন্যায় ব্যাংক থেকে ৪% হারে সুদে ঋণ পাবেন কি না এমন প্রশ্ন করে অর্থমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন যশোর-২ আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. মনিরুল ইসলাম মনির। বুধবার বিকাল সাড়ে ৪টায় অনুষ্ঠিত দশম জাতীয় সংসদের ১৯তম অধিবেশনে এক সম্পূরক প্রশ্নে তিনি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। তিনি বলেন, ‘আমার নির্বাচনী এলাকা ঝিকরগাছার গদখালী যাকে বলা হয় ফুলের রাজধানী। বাংলাদেশের ৮৫ ভাগ ফুল উৎপাদন হয় সেখানে। আমাদের দেশের অফসল প্রধান যে ফসলগুলো তেল, ডাল, মসলাতে ব্যাংক ৪% সুদে ঋণ দেয়। কিন্তু ফুলের ঋণের সুদের হার ১০% থেকে ১২%। সেখানে এনজিওগুলো এমনভাবে বিস্তার লাভ করেছে তাদেরকে সুদ দিতে হয় ৩০-৩৫% পর্যন্ত। এছাড়াও তিনি আরো বলেন, ‘আমার প্রশ্ন এই যে প্রান্তিক চাষীরা যারা দেশের ৮৫% চাহিদা মেটায় তাদের এই ফুল চাষকে অফসল ধরে তারা ৪% সুদে ঋণ পাবে কি না?’এর আগে তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে বলেন, ‘আমি ধন্যবাদ জানাচ্ছি আমাদের উন্নয়ন বান্ধব প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে। যিনি কিছুক্ষণ আগে ২০১৭-১৮ অর্থ বছরের বাজেটের আকার ৪ লাখ ২’শ ৬৬ কোটি টাকার কথা বলেছেন। কিন্তু জামাত-বিএনপির আমলে ২০০৫-০৬ সালের বাজেটের আকার ছিলো ৬১ হাজার ৫৮ কোটি টাকা। এ থেকেই বোঝা যায় জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাদের দেশকে উন্নতির দিকে নিয়ে যাচ্ছেন।’


Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category


© All rights reserved © 2020 www.manirampurkantho.com
Site Customized By NewsTech.Com