1. admin@manirampurkantho.com : admin :
  2. jahidjashore98@gmail.com : jahid :
শিরোনাম :
মণিরামপুরে আটককৃত ৫৫৫ বস্তা চাল নিলামে বিক্রি এখনও সক্রিয় মণিরামপুরে চাল পাচার সিন্ডিকেট! ‘আম্ফান’: ছাত্রলীগকে দুর্গত মানুষদের পাশে থাকার নির্দেশ ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের ৭ নম্বর বিপদ সংকেত মণিরামপুরে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ম্যাসেঞ্জারে কুরুচিপূর্ণ বার্তা দিয়ে প্রেম নিবেদন মনিরামপুরে ফ্রি এ্য্যাম্বুলেন্স সার্ভিস উদ্বোধন করেন সাবেক এমপি পুত্র হুমায়ন সুলতান সরকারী চাল পাচারের ঘটনায় আটক শহিদুলকে আদালতে জবানবন্দি শেষে জেলহাজতে প্রেরণ আইনি জটিলতায় মণিরামপুর থানা চত্বরের খোলা আকাশের নিচে নষ্ট হতে চলছে উদ্ধারকৃত ৫৫৫ বস্তা চাল মণিরামপুরে ট্রাকভর্তি সরকারী চাল কালোবাজারে বিক্রয় সিন্ডিকেট নেতা শহিদুল গ্রেফতার করোনা ভাইরাসে বিক্রি নেই ফুল, কেশবপুরে মাঠেই শুকোচ্ছে বিভিন্ন প্রজাতির ফুল

যবিপ্রবিতে করোনা পরীক্ষা শুরু হবে আগামীকাল থেকে

  • Update Time : শুক্রবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২০
  • ১৪১ Time View

নির্মল কুমার,যবিপ্রবি প্রতিনিধি: যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) জিনোম সেন্টারে নমুনা পাওয়া সাপেক্ষে আগামীকাল শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে করোনাসন্দেহভাজনদের নমুনা পরীক্ষা। আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে যবিপ্রবির প্রশাসনিক ভবনের সম্মেলন কক্ষে ব্রিফিংয়ে এ ঘোষণা দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ারহোসেন। অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন, দেশের এই দুঃসময়ে মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারছি, এটাই আমাদের সার্থকতা। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইন অনুযায়ী সম্পূর্ণ ‘সেফটি অ্যান্ডসিকিউরিটি’ অনুসরণ করে করোনা ভাইরাসের পরীক্ষা করা হবে। ইতোমধ্যে জিনোম সেন্টারের সকল যন্ত্রের ফিটনেস পরীক্ষা করা হয়েছে। করোনা ভাইরাস শনাক্তের কিটের কার্যকারিতাপরীক্ষা করা হয়েছে। সবকিছু সঠিক থাকায় নমুনা পেলেই আমরা আগামীকাল শুক্রবার থেকেই করোনার পরীক্ষা শুরু করতে পারবো। অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন আরও বলেন, যবিপ্রবির জিনোম সেন্টারে প্রতিদিন কমপক্ষে ২০০টি নমুনা পরীক্ষা করা সম্ভব। এর বেশিও নমুনা পরীক্ষার সক্ষমতা ও জনবলআমাদের আছে। তবে এটা নমুনা সরবরাহের উপর নির্ভর করবে। ব্রিফিংয়ে যশোরের সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন বলেন, দেশের এই দুঃসময়ে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এগিয়ে আসায় ধন্যবাদ জানাচ্ছি। শুধু যশোর নয় ঝিনাইদহ, মাগুরা ও নড়াইলের রোগীদের নমুনাও এখানে পরীক্ষা করা সম্ভব হবে। আশা করছি, সবকিছু ঠিক থাকলে আগামীকাল শুক্রবার থেকে এখানে পরীক্ষা শুরু করতে পারবো। তিনি বলেন, নিজ নিজ উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের মাধ্যমে নমুনা সংগ্রহের পর, সিভিল সার্জনের কার্যালয় করোনা সন্দেহভাজন রোগীদের নমুনা যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে তা পাঠাবেন।ফলে এখানে কোনো রোগীর আসার প্রয়োজন নেই। জিনোম সেন্টারের সহযোগী পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. ইকবাল কবীর জাহিদ বলেন, আমরা নমুনা পরীক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় (বিএসএল-২) সতর্কতা অবলম্বন করবো। এখানে করোনাসন্দেহভাজন কোনো রোগীও আসবে না। ফলে বিশ্ববিদ্যালয় বা এর আশপাশের বাসিন্দাদের কোনো স্বাস্থ্যঝুঁকি নেই। ব্রিফিংয়ে আরও উপস্থিত ছিলেন করোনা ভাইরাস পরীক্ষাকরণ দলের সদস্য ড. মো. নাজমুল হাসান, ড. শিরিন নিগার, ড. তানভীর ইসলাম, ড. সেলিনা আক্তার, ড. হাসান মোহাম্মদ আল-ইমরান, অভিনু কিবরিয়া ইসলাম, প্রভাস চন্দ্র রায়, রুবাইতুল আলম, সাজিদ হাসান, মেডিকেল অফিসার (সিভিল সার্জন) ডা. মো. রেহেনেওয়াজ, প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. আরিফুজ্জামানপ্রমুখ।


Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category


© All rights reserved © 2018 www.manirampurkantho.com