1. admin@manirampurkantho.com : admin :
  2. jahidjashore98@gmail.com : jahid :
শিরোনাম :
‘বাংলাদেশ যাত্রাশিল্প উন্নয়ন পরিষদ, মণিরামপুর’র স্মরকলিপি প্রদান মণিরামপুরে ‘গ্রামীণ ষাঁড়’ নামের গরুর দাম হাকিয়েছে ১০ লাখ টাকা জনসাধারণকে দূর্ভোগ থেকে রক্ষা করতে নিজ উদ্যোগে রাস্তা সংস্কার করলেন কৃষকলীগনেতা হারুন মণিরামপুরে চিকিৎসকসহ একই দিনে রেকর্ড ১৩জন করোনা পজিটিভ উন্নয়নের সার্থে নির্বার্হী কর্মকর্তা হিসেবে আপনাদের সার্বিক সহযোগিতা চাই : ইউএনও সৈয়দ জাকির হাসান মণিরামপুরে ভল্কানাইজিং সিলিন্ডার বিষ্ফোরিত হয়ে ১ শিশু আহত করোনাভাইরাসে নিরাপদ থাকতে ভিটামিন ডি গ্রহণ করা উচিত : ডা. মেহেদী হাসান বাংলাদেশে করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কারের দাবি গ্লোবের আজ মণিরামপুরে সেই ৫৫৫ বস্তা চাল পাচার সিন্ডিকেটের জগদিশ দাসকে আটক অনুপ্রবেশকারী চিহ্নিত করে মণিরামপুরে ছাত্রলীগের প্রেস বিজ্ঞপ্তি

অবশেষে কারাগার থেকে হাসপাতালে খালেদা

  • Update Time : সোমবার, ১ এপ্রিল, ২০১৯
  • ১০৯ Time View

ডেক্স নিউজ: অসুস্থ খালেদা জিয়াকে কোথায় চিকিৎসা দেয়া হবে- তা নিয়ে সরকার ও বিএনপির পরস্পরবিরোধী চাওয়ার মধ্যেই অবশেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালেই নেয়া হয়েছে তাকে। সোমবার দুপুর ১২টা ৩৬ মিনিটে হাসপাতালে পৌঁছায় খালেদাকে বহনকারী অ্যাম্বুলেন্স।

এর আগে দুপুর ১২টা ২০ মিনিটে রাজধানীর নাজিমউদ্দিন রোডের পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্দেশে রওনা হয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নিরাপত্তাবেষ্টনীতে থাকা গাড়ি বহর।

পুলিশ, র‌্যাব, ফায়ার সার্ভিস ও কারা কর্তৃপক্ষের মিলিয়ে ১০-১২টি গাড়ির একটি বহর বিএসএমএমইউর উদ্দেশে রওনা দেয়।

খালেদাকে হাসপাতালে নেয়ার উদ্দেশে এর আগে সকাল থেকেই পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারের চারপাশের সড়ক বন্ধ করে দেয়া হয়। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিপুলসংখ্যক সদস্য মোতায়ন করা হয়।

এর আগে গত মাসের শুরুর দিকেও খালেদা জিয়াকে একবার বিএসএমএমইউয়ে নেয়ার কথা উঠেছিল। তবে খালেদা জিয়া রাজি না হওয়ায় তাকে শেষ পর্যন্ত সেবার হাসপাতালে নেয়া হয়নি।

এক বছরের বেশি সময় কারাবন্দি খালেদা জিয়া অসুস্থ বলে বিএনপির পক্ষ থেকে বিভিন্ন সময় বলা হলেও খালেদাকে বিএসএমএমইউয়ে চিকিৎসা দেয়ার বিষয়ে তারা খুব একটা আগ্রহী নয়। বরং বিএনপির পক্ষ থেকে বিভিন্ন সময় খালেদা জিয়াকে ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তির কথা বলা হয়েছে।

দুদকের করা দুই মামলায় ১০ ও ৭ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হয়েছেন খালেদা জিয়া। আপিলে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৫ বছরের কারাদণ্ড বেড়ে ১০ বছর এবং জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিশেষ আদালতে ৭ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হন তিনি।

২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় ঘোষণার পর পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডে অবস্থিত পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে খালেদা জিয়াকে বন্দি রাখা হয়। সেখান থেকেই গত ৬ অক্টোবর চিকিৎসকদের পরামর্শে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে নেয়া হয় সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীকে। টানা এক মাস দুই দিন চিকিৎসা নেয়ার পর ৮ নভেম্বর তাকে কারাগারে ফিরিয়ে আনা হয়।


Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category


© All rights reserved © 2020 www.manirampurkantho.com