1. admin@manirampurkantho.com : admin :
শিরোনাম :
ধর্ষণ, শিশু নির্যাতন বন্ধসহ অপরাধীদের ফাঁসির দাবীতে মণিরামপুরে বন্ধনের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত মনিরামপুরে ৫৫৫ বস্তা চাউল কান্ডে ভাইস চেয়ারম্যান বাচ্চুসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে ডিবির মামলা মণিরামপুরে মাদ্রাসার সুপার ও সভাপতির বিরুদ্ধে ভূয়া নিয়োগসহ অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন “শুভ মহালয়া”- সবাইকে আগমনীর আনন্দ বার্তা ও শুভেচ্ছা অতিরিক্ত ভর্তি ফি আদায়ের প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে উত্তাল মণিরামপুর সরকারী কলেজ ক্যাম্পাস মণিরামপুর সরকারি কলেজে অতিরিক্ত ভর্তি ফি আদায়ের অভিযোগ মণিরামপুরে জমি দখলকে কেন্দ্র করে যুবলীগ নেতার নেতৃত্বে প্রতিপক্ষের উপর হামলা হামলায় নারী-পুরুষসহ আহত ১০, দেশী অস্ত্র ও গাজা উদ্ধার মণিরামপুরে কৃষকদলের উদ্যোগে বিএনপির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত ৭১’র পরাজিত শত্রুদের সকল ষড়যন্ত্র রুখে দিতে ছাত্রলীগকে মুখ্য ভুমিকা পালন করতে হবে -প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য মণিরামপুরে ৫ দফা বাস্তবায়নের দাবীতে বাংলাদেশ কৃষক সংগ্রাম সমিতির স্মারকলিপি প্রদান

আমাদেরকে JESSORE এ ফিরিয়ে দিন

  • Update Time : বুধবার, ৪ এপ্রিল, ২০১৮
  • ১৯৯ Time View

ব্রিটিশ ভারতের রাজধানী কোলকাতা। ১৭৭২ সালে কোলকাতা কে রাজধানী করার পর থেকে ব্রিটিশ ভারত কে জেলা অনুযায়ী ভাগ করে শাসন করার পরিকল্পনা করা হয়। প্রথম জেলা হিসাবে যশোরকে ১৭৮১ সালে ঘোষনা করা হলেও যশোরকে ১৭৬৫ সাল থেকেই স্বতন্ত্র অঞ্চল হিসাবে বিবেচনা করে আসে ব্রিটিশরা।

 

রাজা প্রতাপাদিত্যের যশোর রাজ্য প্রথম জেলা হিসাবে খুলনা বিভাগের অধিকাংশ অংশ যশোরের অধীনে আসে। যশোরের মহকুমা শহর ছিল আজকের বিভাগীয় শহর খুলনা। ১৮৮৯ সালে খুলনাকে জেলায় উত্তীর্ণ করা হয়।

 

আর আজকের বাংলাদেশের প্রথম দুটি পৌরসভা হল ঢাকা এবং যশোর। ১৮৬৪ সালে এই দুটি পৌরসভা করা হলেও ভাগ্যের বিড়ম্বনায় যশোর আজ ১৫৪ বছর ধরে পৌরসভা হিসাবেই রয়ে গিয়েছে।

 

দিন বলেছে, যুগ পার হয়েছে। যশোর কালেক্টরেটের ম্যাজিস্ট্রেট বঙ্কিম বাবুর লেখা গান ভারতের জাতীয় গান হয়েছে। শুধু যশোর রয়ে গেছে সেই আগের মতই।

 

খুলনা এখন সিটি কর্পোরেশন। বরিশাল, সিলেট, রংপুর, কুমিল্লা আজ সিটি কর্পোরেশন। যশোর আজো সেই পুরাতন পৌরসভা রয়ে গেল। প্রধানমন্ত্রী ঘোষনা দিলেন দ্বিতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় আসলে যশোর পৌরসভাকে সিটি কর্পোরেশন করা হবে। দ্বিতীয় মেয়াদ শেষ হতে আর কয়েক মাস। উৎসুক নির্বোধ যশোরবাসী শুধু আশায় বুক বাধে। কেউ কথা রাখেনি।

 

তবে হ্যা। যশের শহর “যশোহর” এর নামের বানান পরিবর্তন করে যশোর করা হয়েছে। শুনতেছি ইংরেজি Jessore থেকে Jashore করার কাজ তুমুল গতিতে এগিয়ে।

 

হাসব না কাঁদব? ঢাকা এবং কোলকাতার মত দুটি মেট্রোপলিটন সিটির মাঝে অবস্থান যশোরের। সর্ববৃহৎ ভূমি বন্দর বেনাপোল আজো বাংলাদেশকে তার আয় তুলে দিচ্ছে। বিসিক শিল্প নগরীরর জমি শেষ হয়ে গেছে ১৯৮০ সালের পরেই। আজো শিল্প স্থাপনে করা হয়নি কোন স্পেশাল জোন। নোয়াপাড়া নদীবন্দর ঘিরে গড়ে উঠা শত শত শিল্প কারখানা এখন শুন্য। নেই কর্মব্যস্ততা। নিশ্চল কলকারখানা। হাজার হাজার একর জমি পড়ে আছে জেজেয়াই, কার্পেটিং মিল, বেঙ্গল টেক্সটাইল মিল, আলফা টোবাকোর মত প্রতিষ্ঠানে। নেই কোন পরিকল্পনা।। অথচ রাজনীতি থেমে নেই। নির্বাচনের আগে একেক জন নিজেকে নিজেই উন্নয়নের কারিগর তকমা দিয়ে প্রচারে ব্যাস্ত।

 

যশোরবাসীর উচিত ঘুম থেকে জেগে উঠা। কেউ আপনাদের সাথে নেই। হ্যা, মেডিকেল কলেজ একটা হয়েছে বটে। হয়েছে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং সফটওয়্যার পার্ক। কিন্তু এগুলা কি যশোরের জন্য? পুরাতন জেলা হিসাবে ১৪ টা জেলায় একটা করে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় করার কথা। সেই কোটায় যশোর একটা পেয়েছে। প্রতি জেলায় মেডিকেল কলেজ ও সফটওয়্যার পার্ক হবার কথা সেই কোটায় পেয়েছে যশোর।

 

তাহলে ব্রিটিশ ভারতের প্রথম জেলা, প্রথম স্বাধীনতা এনে দেয়া এই জেলার জন্য আলাদা ভাবে কি করা হয়েছে? হ্যা, ব্রিটিশরা ১৯৪৭ সালে যশোরকে ভেঙ্গে বনগাঁ সহ কিছু অংশ দিয়েছে ভারত কে। আর এর পর যশোরকে ভেঙ্গে একেকটি নতুন নতুন জেলা করা হয়েছে। সর্বশেষে নামটাও কেড়ে নেয়া হল। বাহ। চলুক। ভালই চলছে। আমার মনে হয় যশোর নাম টা মুছে দেয়া এখন সময়ের দাবি।


Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category


© All rights reserved © 2020 www.manirampurkantho.com
Site Customized By NewsTech.Com